১৮-জুলাই-২০২৪
১৮-জুলাই-২০২৪
Logo
করপোরেট কর্নার

রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং কী এবং কীভাবে কাজ করে

দিন পরিবর্তন ডেস্ক

প্রকাশিতঃ ২০২৩-১০-৩১ ১৯:০৩:৫৪
...

গ্যাজেট এখন আমাদের জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ধরুন কোথাও ঘুরতে যাচ্ছেন আর হঠাৎ খেয়াল করলেন আপনার ইয়ারবাডে চার্জ নেই এবং সেটি প্রায় বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এরকম সময়ে আপনাকে সাহায্য করতে পারে রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং। কোনো ক্যাবল, অ্যাডাপ্টর বা কর্ড ছাড়াই আপনার স্মার্টফোনের মাধ্যমে ইয়ারবাড চার্জ করে নিতে পারবেন। এটাই রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের জাদু।
 
বাংলাদেশে রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি এর আগে কেবল ফ্ল্যাগশিপ ফোনেই দেখা যেত। কিন্তু সম্প্রতি ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো বাজারে আসার পর এই ফিচার আবার আলোচনায় ওঠে এসেছে। মাঝারি বাজেটের ফোনে একমাত্র ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো-তেই রিভার্স ওয়্যারলেস প্রযুক্তি আছে। 

রিভার্স-চার্জিং মূলত কাজ করে বাই-ডিরেকশনাল চার্জিং সার্কিট্রি প্রযুক্তি ব্যবহার করে। এই প্রক্রিয়ায় শক্তি উভয় দিকেই যাতায়াত করতে পারে। অর্থাৎ, রিভার্স চার্জিং ফিচারটি চালু থাকলে ডিভাইসটি শুধু শক্তি গ্রহণই করে না, অন্যান্য ডিভাইসে শক্তি সরবরাহও করে। আবার, ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি বিদ্যুৎচৌম্বকীয় ক্ষেত্রকে (ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক ফিল্ড) ব্যবহার করে চার্জিং পড থেকে ডিভাইসে শক্তি স্থানান্তর করে। অর্থাৎ আপনি চার্জিং পডের ওপর ডিভাইসটি রাখলে চুম্বকের মাধ্যমে শক্তি স্থানান্তরিত হয়। 

সুতরাং, রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের ক্ষেত্রে স্মার্টফোনটি নিজেই চার্জিং পড হিসেবে কাজ করে। এই পাওয়ার-শেয়ারিং পদ্ধতিটি প্রচলিত প্রক্রিয়ার থেকে ভিন্ন। একইসাথে, এটি প্রযুক্তির প্রতি আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টে দিচ্ছে। বর্তমানে স্মার্টফোন, স্মার্টওয়াচ, হেডফোন, ইয়ারবাডের মতো অনেক পণ্যেই এখন ওয়্যারলেস চার্জিং ব্যবহৃত হয়। তাই রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তিসম্পন্ন স্মার্টফোন থাকলে, এই গ্যাজেটগুলোর চার্জ নিয়ে আমাদের অনাকাঙ্ক্ষিত সংকটে পড়তে হবে না।

রিভার্স ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি ব্যবহার করলে ফোনের চার্জ কমবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং ৬৫ ওয়াট ওয়্যারড চার্জিং অ্যাডাপ্টর থাকলে সেটা খুব বেশি সমস্যা হওয়ার কথা নয়। এমন সক্ষমতা থাকলে ফোন ৩০ মিনিটেই ৮০% পর্যন্ত চার্জ হয়ে যায়।  
এমনই চার্জিং সক্ষমতাসম্পন্ন ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো, নোট ৩০ সিরিজের অন্তর্ভুক্ত। সিরিজটিতে আছে আরও একটি মডেল: নোট ৩০। নোট ৩০ প্রো স্মার্টফোনের দাম বাংলাদেশে ২৭,৯৯৯ টাকা। ফোনটির সাথে ২,০০০ টাকা সমমূল্যের একটি ওয়্যারলেস চার্জার ক্রেতারা পাচ্ছেন বিনামূল্যে। নোট ৩০ মডেলের ৮ জিবি+১২৮ জিবি এবং ৮ জিবি+২৫৬ জিবি’র দুটি ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে যথাক্রমে ১৮,৯৯৯ ও ২৩,৯৯৯ টাকায়।